মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

সালিশী পরিষদ

১৯৬৫ সালের পারিবারিক মুসলিম আইন অনুযায়ী শালিস পরিষদ পরিচালিত হয়। শালিসী পরিষদে তালাক, বহু বিবাহ, খোরপোষ বিষয়ক বিরোধ নিষ্পত্তি করা হয়ে থাকে। বাদী ও বিবাদী পক্ষের মনোনীত দুজন এবং চেয়ারম্যান সহ তিন সদস্য বিশিষ্ট সালিসী পরিষদ গঠিত হয়। এর সংখ্যা ৩ জন থেকে ৫ জন ও হতে পারে। উভয় পক্ষেরই আত্মপক্ষ সমর্থন এবং নিজের পক্ষে কথা বলার স্বাধীনতা থাকে। সালিসী পরিষদ উভয় পক্ষের কথা বার্তা যুক্তি তর্ক শেষে পারিবারিক মুসলিম আইন অনুযায়ী সিদ্ধান্ত প্রদান করেন।


Share with :

Facebook Twitter